ইন্ডাস্ট্রি স্কিল কাউন্সিল

আইএসসি এমন একটি সমন্বয় বডি যেটি শিল্প খাতের প্রধান প্রধান উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান এবং শিল্প পর্ষদগুলো নিয়ে গঠিত এবং যেটি শিল্প প্রতিষ্ঠানের জন্য শ্রমমক্তির চাহিদা, চাহিদাভিত্তিক দক্ষতার মান নির্ধারণ করবে। শ্রম বাজারের তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ, অকুপেশনাল স্ট্যন্ডার্ড তৈরিতে পরামর্শ ও সহায়তা প্রদান করবে এবং এনটিভিকিউএফ অনুযায়ী প্রশিক্ষণার্থী মূল্যায়নে এ্যাসেসর হিসেবে ভূমিকা রাখবে। বর্তমানে ১২টি শিল্প সেক্টরে ১২টি আইএসসি গঠিত হয়েছে।

আইএসসি এর কাজসমূহ:

  • শিল্পখাতের দক্ষতা উন্নয়ন পরিবীক্ষণ ও পর্যালোচনা করা এবং বিদ্যমান ঘাটতিগুলো চিহ্নিত করা ও নিরসন করা;
  • বিভিন্ন শিল্পের চাহিদা অনুয়ায়ী শিল্পভিত্তিক নির্দিষ্ট দক্ষতা নীতি চর্চা নির্দিষ্ট করা;
  • উৎপাদনশীলতা এবং কর্মীদের কল্যাণ সম্পর্কিত সুযোগ সুবিধা বাড়ানোর জন্য দক্ষতা প্রশিক্ষণ দেয়ার জন্য শিল্পের সামর্থ্য বৃদ্ধি করা এবং কর্মীদের দক্ষতা ও যোগ্যতা বাড়ানো;
  • কাউন্সিলের আওতাভুক্ত শিল্পখাতের জন্য দক্ষতা উন্নয়নের চাহিদা এবং অগ্রাধিকারের উপর দক্ষতা ব্যবস্থার জন্য নেতৃত্ব এবং কৌশলগত উপদেশ দেয়া;
  • শিক্ষক ও প্রশিক্ষকদের জন্য শিল্পের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ প্রশিক্ষণ দেয়া এবং/অথবা পেশাগত মানোন্নয়ন কর্মসূচির জন্য সহায়তা দেয়া;
  • দক্ষতা মান ও যোগ্যতা নিরূপণ ও পর্যালোচনায় অবদান রাখা এবং নতুন প্রশিক্ষণ পাঠ্যক্রম তৈরি করা ও পর্যালোচনায় অংশ নেয়া;
  • জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন পরিষদ (এনএসডিসি)কে শিল্পখাতের চাহিদার উপর দক্ষতা বিষয়ে পরামর্শ দেয়া;
  • শিল্প কারখানায় কর্মীদের উন্নয়ন সংক্রান্ত কাজ ত্বরান্বিত করা;
  • প্রয়োজন অনুযায়ী নিয়মিতভাবে খাতের দক্ষতা উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়ন করা;
  • শিল্প কারখানার শিক্ষানবিসি কর্মসূচিকে শক্তিশালী করতে সাহায্য করা;
  • প্রশিক্ষণদাতাদের সঙ্গে অংশীদারিত্ব গড়ে তোলা এবং স্কুল, কলেজ, শিল্পকারখানা এবং প্রতিষ্ঠানের দক্ষতা উন্নয়নে সহযোগিতা করা।       

      বাংলাদেশে বর্তমানে নিম্নলিখিত ১২টি  আইএসসি গঠিত হয়েছে: